Breaking News

ঘরের ভেতর ট্রাক, প্রাণ গেল বাবা-মেয়ের

অনলাইন ডেস্ক :

দিনমজুর শাহ বাবু পরিবারের সদস্যদের নিয়ে রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে সিমেন্টবোঝাই একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঢুকে পড়ে শাহ বাবুর বাড়িতে। ওই ট্রাকের চাপায়ই নিহত হন শাহ বাবু (৩৭) ও তাঁর মেয়ে বৃষ্টি খাতুন (১২)। গত শুক্রবার পাবনার সাঁথিয়ায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে একই দিনে বনভোজন শেষে পটুয়াখালীর দুমকিতে কুয়াকাটা থেকে ফেরার পথে নিহত হয়েছে এক শিক্ষার্থী। এ ছাড়া নাটোরের লালপুর, বরিশালের গৌরনদী, গাইবান্ধার পলাশবাড়ী এবং রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে আরো ছয়জন।

সাঁথিয়া থানার ওসি আসাদুজ্জামানের বরাত দিয়ে পাবনা প্রতিনিধি জানান, ওই দিন রাতে উপজেলার ভিটাপাড়া এলাকায় দিনমজুর শাহ বাবু পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘরে রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে নগরবাড়ী থেকে বাঘাবাড়ীগামী ওই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে শাহ বাবুর টিনের ঘরের ভেতর ঢুকে পড়ে। দুর্ঘটনাস্থলেই ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মারা যান বাবা ও মেয়ে। তবে প্রাণে রক্ষা পান শাহ বাবুর স্ত্রী লাকী খাতুন ও ছেলে সাগর।

ওসি আরো জানান, খবর পেয়ে পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করেন। দুর্ঘটনার পরপরই ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে যান। পুলিশ ট্রাকটি জব্দ করেছে।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার লেবুখালী ফেরিঘাটে যাত্রীবাহী বাসের চাপায় গত শুক্রবার ইয়াদ মোল্লা (১৪) নামের এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। তার বাড়ি মাদারীপুর জেলায়। ইয়াদের চাচা বাবু মোল্লা জানান, গত বৃহস্পতিবার সকালে তাঁরা পারিবারিক বনভোজনে সমুদ্রসৈকত কুয়াকাটায় বেড়াতে যান। শুক্রবার সূর্যাস্ত দেখে কুয়াকাটা থেকে ফেরার পথে লেবুখালী ফেরিঘাটে পরিবহনের দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা করছিলেন। তখন তাঁরা তাঁদের গাড়ি থেকে অনেকেই বাইরে বের হন। হঠাৎ পেছন থেকে কুয়াকাটা এক্সপ্রেস নামের একটি বাস ইয়াদকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলে ইয়াদ মারা যায়।

দুমকি থানার ওসি মো. মেহেদী জানান, বাসটি পটুয়াখালীর দিকে পালিয়ে গেছে। বাসটি আটকের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি জানান, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে গৌরনদীর খাঞ্জাপুর এলাকায় গত শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টায় সড়ক দুর্ঘটানায় তিনজন নিহত হয়েছে। জানা যায়, একটি পিকআপ আরেকটি নষ্ট পিকআপকে বেঁধে নিয়ে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি কাভার্ড ভ্যান ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ দুর্ঘটনায় পিকআপের চালক মো. আক্তার বয়াতি (৩০), অন্য পিকআপটির চালক রাসেল হোসেন (৩০) এবং সহযোগী সুহান হোসেন (২২) নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার গৌরনদী হাইওয়ে থানার পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম ভূঁইয়া বলেন, রাতেই দুর্ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। কাভার্ড ভ্যান ও দুটি পিকআপ পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কাভার্ড ভ্যানের চালক পলাতক। এ ব্যাপারে থানায় মামলা করা হয়েছে।

নাটোর প্রতিনিধি জানান, গতকাল বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে পল্লী বিদ্যুতের লালপুর জোনাল অফিসের দুই লাইনম্যান মোটরসাইকেলে করে উপজেলার লালপুর-মোহরকয়া বাজার সড়কে দুলাল ভাণ্ডারির বাড়ির সামনে যান। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা আরেকটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষ হলে আহত হন তাঁরা। স্থানীয় লোকজন তাঁদের লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রেজাউল ইসলামকে (৪৫) মৃত ঘোষণা করেন। আহত জাহাঙ্গীর আলমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা সদরে রংপুর-বগুড়া মহাসড়কের ড্রিমল্যান্ড এলাকায় গতকাল বিকেলে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় চাঁন মিয়া (৭০) নামের এক বৃদ্ধ নিহত হন। চাঁন মিয়া পৌরশহরের জগরজানি গ্রামের আছর উদ্দিনের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ড্রিমল্যান্ড এলাকায় ব্যাটারিচালিত একটি রিকশা-ভ্যানে করে চাঁন মিয়া উপজেলা সদরে আসছিলেন। এ সময় ওই স্থানে বগুড়া থেকে রংপুরগামী একটি মাইক্রোবাস ভ্যানটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। ফলে ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে দুর্ঘটনাস্থলেই চাঁন মিয়া মারা যান। দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসী মাইক্রোবাসটি আটক করে রাখে। তবে চালক পালিয়ে যান।

রাজবাড়ী প্রতিনিধি জানান, রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের কুরশী উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় গত শুক্রবার ট্রাক্টর উল্টে ড্রাইভার আলহাজ মণ্ডলের (২২) মৃত্যু হয়েছে। তিনি কালুখালী উপজেলার মৃগী ইউনিয়নের নিয়ামতপুর গ্রামের কুদ্দুস মণ্ডলের ছেলে। আলহাজ মণ্ডলের দুলাভাই আমজাদ মণ্ডল জানান, স্থানীয় লোকজন আলহাজ মণ্ডলকে উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

সুত্র :কালের কন্ঠ

Print This Post

About Amena Fatema

Check Also

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ায় আওয়ামী লীগের নীতির পরিবর্তন হয়নি :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ১০ বছর পর জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ায় আওয়ামী লীগের নীতির …

Leave a Reply