Breaking News

নরসিংদীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

অনলাইন ডেস্ক :

নরসিংদীর মাধবদীতে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের পর নিহতের মরদেহ পুুকুরের নিচে মাটি চাপা দিয়ে গুম করে রাখে। পরে ৯৯৯ এ ফোন দিলে মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে মাটি খুড়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নরসিংদীর মাধবদীর মহিষাসুরা ইউনিয়নের দাইরের পার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোহাগ দাইরের পাড় গ্রামের সানাউল্লাহ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানিয়েছেন, চলতি মাসের ২ তারিখ রাতে নিহত সোহাগ নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করে বাড়িতে আসে। ওই সময় সোহাগ তার মা’র সাথে রাগারাগি ও গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে সোহাগ উত্তেজিত হয়ে তার মা’কে মারধোর করতে থাকে। এতে তার বাবা বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে তাকেও মারধোর করে। পরে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। পরে সোহাগের ছোট ভাই জহিরুল ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে সোহাগের মাথায় আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে নিহতের লাশ বাড়ির পাশে একটি পুকুর পাড়ে মাটি চাপা দিয়ে লাশ গুম করে রাখে।

এদিকে সোহাগকে দেখতে না পেয়ে স্থানীয় লোকজন ৯৯৯ ফোন করে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে মাধবদী থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেন। এরই মধ্যে মাধবদী থানা পুলিশ নিহতের ছোট ভাইদের দুই বোউকে আটক করে। পরে তাদের দেয়া তথ্য মতে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বাড়ির পাশে একটি পুকুরের পাড় থেকে বেকু মেশিন দিয়ে মাটি খুড়ে নিহত সোহাগের মরদেহ উদ্ধার করে।

মাধবদী থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান বলেন, পারিবারিক বিরোধের জের ধরেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। হত্যার পর লাশটিকে গুম করে রাখা হয়েছিল। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হচ্ছে।

সুত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

Print This Post

About Amena Fatema

Check Also

জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ায় আওয়ামী লীগের নীতির পরিবর্তন হয়নি :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ১০ বছর পর জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ায় আওয়ামী লীগের নীতির …

Leave a Reply